1. admin@sobsomoyerkhobor.com : admin :
দিনে ২০০ থেকে ৩০০ টাকা জমায় ঢাকায় ফ্ল্যাট বা জমি’ মিরপুরে সমিতির নামে অবৈধ ব্যাংকিং গ্রেপ্তার ৩ জন – সব সময়ের খবর
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:২৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কুমিল্লা মেঘনা উপজেলা ছাত্রলীগ লুটেরচর ইউনিয়ন শাখার কর্মী সভা হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী’র ৫৯ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ’র শ্রদ্ধা নিবেদন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় প্রাইভেট কার চাপায় নিহত বিএনপির সমাবেশে জড়ো হচ্ছেন নেতাকর্মীরা কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হলেন জনাব কাইয়ুম হোসাইন। ১ কোটি ২০লক্ষ টাকা মুল্যের কোষ্টি পাথর উদ্ধার করেছে জেলার শ্রেষ্ঠ সার্কেল অফিসারঃ তালা মার্কার জয় নিশ্চিত করতে ভাইস চেয়ারম্যান ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সহ অনেকেই। ডামুড্যায় পূজা মন্ডপের নিরাপত্তায় বিট পুলিশিং সভা ইতালির ইতিহাসে প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনি!

দিনে ২০০ থেকে ৩০০ টাকা জমায় ঢাকায় ফ্ল্যাট বা জমি’ মিরপুরে সমিতির নামে অবৈধ ব্যাংকিং গ্রেপ্তার ৩ জন

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
  • ৪৪ বার পঠিত

দিনে ২০০ থেকে ৩০০ টাকা জমায় ঢাকায় ফ্ল্যাট বা জমি’
মিরপুরে সমিতির নামে অবৈধ ব্যাংকিং গ্রেপ্তার ৩ জন

মোঃ রাসেল সরকার//দৈনিক মাত্র ২০০ থেকে ৩০০ টাকা জমা করলে একসময় ঢাকা শহরে একটি করে ফ্ল্যাট বা জমি দেওয়া হবে—এমন স্বপ্ন দেখিয়ে প্রতারণা করে আসছিল রাজধানীর মিরপুরের শাহ আলী এলাকায় শিবপুর ক্ষুদ্র ঋণদান কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড নামের একটি ভুয়া প্রতিষ্ঠান। র‌্যাব-৪ ওই চক্রের তিনজনকে আটক করেছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন ওই প্রতিষ্ঠানের সভাপতি ফয়েজউল্লাহ (৫০) এবং দুই নারী সহযোগী আফরিন আক্তার (২৪) ও মোছা. তাসলিমা বেগম (৩৩)। গত মঙ্গলবার দুপুরে কারওয়ান বাজারে র?্যাবের মিডিয়া সেন্টারে র‌্যাব-৪-এর অধিনায়ক ডিআইডি মোজাম্মেল হক এই তথ্য জানান।

মোজাম্মেল হক জানান, মিরপুর এলাকার কিছু ভুক্তভোগীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গত সোমবার ও গত মঙ্গলবার র‌্যাব-৪-এর একটি দল রাজধানীর শাহ আলীর মুক্তবাংলা শপিং কমপ্লেক্সে অভিযান চালায়। এ সময় প্রতারণার দায়ে শিবপুর ক্ষুদ্র ঋণদান কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেডের সভাপতিসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

র‌্যাব জানায়, মাঠ পর্যায়ের কর্মীদের মাধ্যমে বস্তি এলাকার প্রতিবন্ধী, ভিক্ষুক, সেলুনের কর্মচারী, ফুটপাতের দোকানদার, গৃহকর্মী ও নিম্ন আয়ের মানুষকে ঋণের লোভ দেখিয়ে সঞ্চয়ের নামে ডিপিএস করতে উদ্বুদ্ধ করতেন তাঁরা। এই কাজ করানো হতো মাঠ পর্যায়ের কর্মীদের দিয়ে।

মাঠ পর্যায়ের কর্মীরা ভুক্তভোগীদের প্রলুব্ধ করে এবং বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করে নানা কৌশলে অফিস কার্যালয়ে নিয়ে যেতেন। এভাবে প্রতিদিন আনুমানিক ২৫০ জন গ্রাহকের কাছ থেকে সঞ্চয় সংগ্রহ করতেন তাঁরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ © সব সময়ের খবর ©
Theme Customized By Shakil IT Park