1. admin@sobsomoyerkhobor.com : admin :
বিউটি ব্লগারের প্রলোভন দেখিয়ে আড়াই কোটি টাকা আত্মসাৎ – সব সময়ের খবর
সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৪৬ পূর্বাহ্ন

বিউটি ব্লগারের প্রলোভন দেখিয়ে আড়াই কোটি টাকা আত্মসাৎ

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২৪ মার্চ, ২০২২
  • ৬৪ বার পঠিত

বিউটি ব্লগারের প্রলোভন দেখিয়ে আড়াই কোটি টাকা আত্মসাৎ

‘নিউজ ডেস্ক// তুমি কি বিউটি ব্লগার হতে চাও?’ ন্যাশনাল মেকওভার পেজেন্ট-২০২২ তোমাকে দেবে সেই সুযোগ। ’ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন চটকদার পোস্ট দিয়ে হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে কয়েক কোটি টাকা। এই ফাঁদে পড়েছেন রাজধানীর প্রায় ৩০০ নারী। এদের অনেকে অভিজাত পরিবারের সদস্যও।

টাকা ফেরত পেতে ওই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে গত ৭ মার্চ গুলশান থানায় সাধারণ ডায়েরিও (জিডি) করেছেন কয়েকজন।
জিডিতে অপূর্ব আবদুল লতিফ ও তার স্ত্রী আফসানা হেলালী জোনাকি নামে দুজনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

ন্যাশনাল মেকওভার পেজেন্টের ফেসবুক পেজে করা ক্যাম্পেইনে বলা হয়েছে, আমরাই তোমাকে বিউটি ব্লগার হতে সাহায্য করব। তুমিই হয়ে উঠবে একজন Influencer. এই সুযোগ শুধুমাত্র National Makeover Pageant 2022-এর রেজিস্টার্ড স্টুডেন্টদের জন্য।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বিউটি ব্লগার তৈরি এবং মেকআপ শেখানোর কথা বলে ফেসবুকে ক্যাম্পেইন শুরু করে ন্যাশনাল মেকওভার পেজেন্ট। এর জন্য গত ১ ফেব্রুয়ারি থেকে রেজিস্ট্রেশন শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি। ১০০ জনের রেজিস্ট্রেশন করানোর কথা থাকলেও মাসজুড়ে ৩০০ নারীর রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করানো হয়। এদের প্রত্যেকের কাছ থেকে মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিসের মাধ্যমে ৯ হাজার থেকে ২৫ হাজার পর্যন্ত রেজিস্ট্রেশন ফি নেওয়া হয়েছে।

যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করানো হয়েছিল তার কোনোটিই পূরণ করা হয়নি। অংশ গ্রহণ করা নারীরা এর প্রতিবাদ জানালে অপূর্ব আবদুল লতিফ টাকা ফেরত দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও পরে তা রাখেননি।
কাজী মার্জিয়া কবির নামে এক ভুক্তভোগী জানান, ন্যাশনাল মেকওভার পেজেন্ট থেকে বলা হয়েছিল যে-তারা ১০০ জনের রেজিস্ট্রেশন নিয়ে কোর্স করাবে। এরপর ছয় দিন ক্লাস নেবে। সপ্তম দিনে পরীক্ষা নিয়ে ২০ জনকে বাছাই করবে।

এরপর ২০ জন থেকে পরীক্ষা নিয়ে ১০ জনকে নির্বাচিত করবে। এই ১০ জন থেকে চ্যাম্পিয়ন, ১ম ও ২য় রানারআপ বানানোর কথা ছিল। কিন্তু ৪ মার্চ তারা ক্লাস করতে গিয়ে দেখেন প্রায় ৩০০ মানুষ। খাবার-পানি কিংবা বসার কোনো ব্যবস্থা নেই। এমন অব্যবস্থাপনায় হট্টগোল বাধলে পরদিন যথাযথ প্রমাণ নিয়ে টাকা দিতে চান অপূর্ব আবদুল লতিফ। কিন্তু পরদিন গিয়ে দেখা গেল টাকা ফেরত না দিয়ে ক্লাস নেওয়ার অভিনব এক প্রতারণা করা হয়।

ন্যাশনাল মেকওভার পেজেন্টের ফেসবুক পেজে গিয়ে দেখা যায়, ভুক্তভোগী এসব নারীকে টাকা ফেরত দিতে তারা আরেকটি বিউটি ব্লগার বানানোর কোর্স চালুর ক্যাম্পেইন শুরু করেছে। এই কোর্সে অংশগ্রহণকারীদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে তাদের ফেরত দেবে বলে জানিয়েছে। এর মধ্যে বেশ কয়েকজনের কাছ থেকে ৫ হাজার টাকা করেও নেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, গুলশান নিকেতনের ৩ নম্বর রোডের ৫৫ নম্বর প্লটের ৭ নম্বর লেবেলে ন্যাশনাল মেকওভার পেজেন্টের অফিস। এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে ন্যাশনাল মেকওভার পেজেন্টের প্রেসিডেন্ট অপূর্ব আবদুল লতিফের সঙ্গে মোবাইলফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ © সব সময়ের খবর ©
Theme Customized By Shakil IT Park